বেতন ও চাকরি পুনর্বহালের দাবিতে টঙ্গীতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ, গাড়ি ভাংচুর

নিউজ ডেস্কঃ

গাজীপুরের টঙ্গীতে বন্ধ কারখানা খুলে দিয়ে চাকরিতে পুনর্বহালের দাবিতে কারখানার সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে পোশাক শ্রমিকরা।
আজ বৃহস্পতিবার (১৪ মে) সকাল সাড়ে ৯টা থেকে গাজীপুরের টঙ্গী স্টেশন রোড, মিলেগেইট, চেরাগ আলী ও হোসেন মার্কেট এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের দু‘পাশে অবরোধ করে বিক্ষোভ করে শ্রমিকেরা। এসময় গাড়ি ভাংচুর ও একটি কভার্ডভ্যানে আগুন দেয় তারা। পরে, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, জিএমপি’র পুলিশ ও শিল্প পুলিশ শ্রমিকদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জানায়, বিসিকের প্যাট্রিয়ট ইকো অ্যাপারেলস্ ও রেডিসনসহ আরও তিনটি কারখানায় শ্রমিক কাজ করলেও আজ সকাল থেকে বেতন ভাতা না দিয়ে করোনা মহামারির কারণ দেখিয়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধের নোটিশ ঝুলিয়ে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এতে, কারখানা বন্ধ ও খোলার সঠিক তথ্য না পেয়ে শ্রমিকরা এ আন্দোলন করে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে গাজীপুর শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুশান্ত সরকার বলেন, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউন চলাকালীন সময় যে সকল শ্রমিকরা কারখানায় কাজ করতে পারেননি, শ্রম আইন অনুযায়ী সে সকল শ্রমিকদের বেতনের ৬০ শতাংশ পরিশোধের নির্দেশনা দিয়েছেন কারখানা মালিকদের। শ্রমিকরা শতভাগ বেতনসহ, বকেয়া বেতন ও ঈদ বোনাসের দাবিতে বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ করেছে। পরে তাদের সাথে আলাপ আলোচনা করে এবং বুঝিয়ে মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নেয়া হয়।

  •  
  •  
  •  
  •