পশুর দাম নেমেছে অর্ধেকে ,খামারিরা হতাশায়

নিউজ ডেস্কঃ

রাজধানীর হাটগুলোতে শেষ মুহূর্তে কোরবানির পশুর দাম অর্ধেকে নেমে এসেছে। হাটে ক্রেতাদের উপস্থিতি কম থাকায় এক সপ্তাহ ধরে পশু নিয়ে বসে আছেন বিক্রেতারা। বুধবার সারাদিন কিছু ক্রেতা থাকলেও পশুর কাঙ্ক্ষিত দাম না পাওয়ায় হতাশায় ভুগছেন খামারি ও ব্যবসায়ীরা।

হাট শুরুর তিনদিন আগে থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে খামারিরা ট্রাক ও ভটভটিতে করে গরু নিয়ে আসেন পশুর হাটগুলোতে। হাটে গরু দিয়ে কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে আছে। কিন্তু সে তুলনায় হাটগুলোতে তেমন ক্রেতা দেখা যাচ্ছে না। ফলে দিন শেষে অনেকটা হতাশা নিয়ে অর্ধেক দামেই গরু বিক্রি করেছেন খামারিরা।

খামারি মঞ্জু মিয়া জানান, হাটে গরু নিয়ে এসে ক্রেতাদের জন্য অপেক্ষা করতে করতে বিরক্ত হয়ে গেছেন। যে কয়েকজন ক্রেতা গরু দাম করেছিল তা খুবই কম। ৬৫০ কেজি ওজনের গরু শেষে ১ লাখ ২০ হাজারে বিক্রি করে দেন তিনি।

অপর এক ব্যাপারী রাজিব হাসান প্রায় ৩০ লাখ টাকায় ২০টি গরু এনেছেন সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর থেকে। তিনি বলেন, ৮টি বিক্রি করেছি কেনা দামে তবে এখনো ১২টা নিয়ে বসে আছি জানি না কপালে কি আছে।

গাবতলী পশুর হাটের ইজারাদার মো. লুৎফর রহমান বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এবার পশুর হাটে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। হাটে বেচাকেনা কম, এছাড়া আশানুরূপ মূল্যও পাচ্ছেন না পশুর মালিকরা। ফলে শেষ মুহূর্তে ভালো কিছুর অপেক্ষায় আছেন তারা।

  •  
  •  
  •  
  •