বাদ জোহর আল্লামা শফীর জানাজা

নিউজ ডেস্কঃ

দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী বড় মাদরাসার মহাপরিচালক ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরের লাশ নিয়ে ঢাকা থেকে রাতেই সড়ক পথে অ্যাম্বুলেন্সে যোগে রওনা হবে জানা গেছে। শনিবার ভোরে মাদরাসায় পৌছবে লাশবাহী অ্যাম্বুলেন্সেটি । বাদ ফজর থেকে হাটহাজারী মাদরাসার দক্ষিণ গেটে শিক্ষক, শুভাকাঙ্ক্ষী ও ছাত্রদের প্রিয় হুজুরকে দর্শনের জন্য সুযোগ করে দেয়া হবে। জোহরের নামাজের পর মাদরাসা মাঠে জানাজা শেষে দীর্ঘ দিনের কর্মস্থল জামেয়ার গোরস্থানে দাফন করা হবে আল্লামা শাহ আহমদ শফী হুজুরকে।

আল্লাামা শাহ আহমদ শফি ১৯৮৬ সালে দারুল উলুম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী বড় মাদ্রাসার মহাপরিচালক (মুহতামিম) পদে যোগ দেন। গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা ৩৪ বছর ধরে তিনি এই দায়িত্ব পালন করেন। ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মাদরাসায় উচ্চতর ডিগ্রীধারী আল্লামা শফি শিক্ষাজীবন শুরু করেন রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সরফভাটা মাদ্রাসায়।সেখান থেকে পটিয়ার আল জামিয়াতুল আরাবিয়া মাদ্রাসায় (জিরি মাদ্রাসা) লেখাপড়া করেন তিনি।এর পর হাটহাজারীর দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদ্রাসায় লেখাপড়া শেষে তিনি ভারতের দেওবন্দ মাদরাসায় উচ্চ শিক্ষা নেন ।

আল্লামা শাহ আহমদ শফি চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পাখিয়ারটিলা গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি দুই ছেলে ও তিন মেয়ের জনক। আল্লামা শফির ছোট ছেলে মাওলানা আনাস মাদানী হেফাজতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক এবং হাটহাজারী মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষা পরিচালক ছিলেন। বড় ছেলে মাওলানা মোঃ ইউছুফ আল্লামা শফির নিজ গ্রামে প্রতিষ্ঠিত মাদরাসার পরিচালক (মুহতামিম) হিসেবে কর্মরত আছেন।

  •  
  •  
  •  
  •