ভাষা আন্দোলনে নারীরা

নিউজ ডেস্কঃ

বিশ্বের যা-কিছু মহান সৃষ্টি চির-কল্যাণকর

অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।

—কাজী নজরুল ইসলাম

এই পৃথিবীতে যত বড় বড় অভিযান সংঘটিত হয়েছে, সব সময়ই পুরুষের পাশাপাশি নারী স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নিয়েছে। পুরুষের তরবারি কখনোই একা হয়নি। সব সময় নারী পুরুষকে যুগিয়েছে শক্তি, দিয়েছে প্রেরণা। কিন্তু পুরুষের কথা যতটা লেখা হয়েছে, নারীর কথা ততটা লেখা হয়নি। আমাদের ভাষা আন্দোলনেও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি।

‘রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই’ দাবির আন্দোলনে সহযোদ্ধা হয়ে ছাত্রদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন ছাত্রীরা। ভাষা আন্দোলনের মিছিলগুলোতে তাঁরা ছিলেন সামনের কাতারে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা রাতে লুকিয়ে মিছিলের জন্য বিভিন্ন স্লোগান সংবলিত পোস্টার এঁকেছেন।

১৯৫২ সালের একুশে ফেব্রুয়ারিতে নারীরাই পুলিশের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কি করে ব্যারিকেড ভেঙেছেন। পুলিশের তাড়া খাওয়া ছাত্রদের নিজেদের কাছে লুকিয়ে রেখেছেন। আহতদের চিকিৎসা করেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ছাত্রীরা। আহতদের চিকিৎসার জন্য ছাত্রীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে চাঁদা তুলেছেন। আবার অনেকে নিজের অলংকার খুলে দিয়েছেন। শুধু তাই নয় ভাষা আন্দোলনে অংশগ্রহণের জন্য অনেককে জেল খাটতে হয়েছে। অনেকে বহিষ্কার হয়েছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে। ভাষা আন্দোলনে শহিদদের স্মরণে প্রথম যে ‘স্মৃতির মিনার’ তৈরি হয়েছিল, সেখানেও ছিল নারীদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ। এভাবে পুরুষের পাশাপাশি নারীরা সংগ্রাম করে রক্ষা করেছেন আমাদের মাতৃভাষার মর্যাদা।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: