পরিবর্তন নিয়ে মাঠে গড়ল ফুটবল

নিউজ ডেস্কঃ

নভেল করোনাভাইরাসের মহামারীতে সবকিছুর মতো বিপর্যয়ের মুখে পড়েছিল ক্রীড়াজগৎও। মার্চের দ্বিতীয় সপ্তাহে ধীরে ধীরে বন্ধ হতে শুরু করে ক্রীড়া আসরগুলো। একপর্যায়ে স্থায়ীভাবে প্রায় সব ধরনের খেলাই বন্ধ হয়ে যায়। এরপর সবার অপেক্ষা ছিল কবে ফুটবল মাঠে ফেরে তা দেখার। অবশেষে জার্মান লিগ বুন্দেসলিগার মধ্য দিয়ে আবারো মাঠে ফিরল ফুটবল। যদিও সাধারণত আমরা যেমনটা ফুটবলকে জানি এটা মোটেই তেমন ছিল না। নতুন বাস্তবতা মেনে নিয়ে পরিবর্তিত হয়েই ফিরেছে খেলাটি।

প্রথমত খেলা হয়েছে দর্শকশূন্য মাঠে। নির্বাসনে যাওয়ার আগেও শেষ দিকে লিগগুলোতে ম্যাচ হয়েছিল দর্শকশূন্য মাঠে। যেখানে থেমেছিল সেখান থেকেই যেন আবার শুরু হলো। যদিও টেলিভিশনের পর্দায় খেলা দেখাও ফুটবলপ্রেমীদের জন্য ছিল আনন্দদায়ক ঘটনা।

এদিকে মাঠের লড়াইয়েও খেলোয়াড়দের মানতে হয়েছে সামাজিক দূরত্বের নিয়ম। বিশেষ করে শালকেকে ৪-০ গোলে হারিয়ে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের জেতা ম্যাচে দেখা গেছে উদযাপনের নতুন ধরন। গোল করেও সতীর্থদের জড়িয়ে ধরে উদযাপন করা হলো না। একে অন্যের দূরত্বে দাঁড়িয়ে গোল উদযাপন করেছেন খেলোয়াড়রা। এদিন মাঠে যে বল ব্যবহার করা হয়েছিল সেটিও ছিল জীবাণুমুক্ত। খেলোয়াড়দের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে এটি করা হয়েছে। এমনকি বিরতির সময়ও বল পুনরায় জীবাণুমুক্ত করে নেয়া হয়। এছাড়া এদিন খেলোয়াড়দের হাত মেলাতেও দেখা যায়নি। কোনো কোনো ক্ষেত্রে কনুই মিলিয়ে একে অন্যকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এছাড়া মাঠে নামার আগে দলগুলো এক সপ্তাহের কোয়ারেন্টিন কাটিয়ে এসেছেন। যেখানে নিয়মিত টেস্টও করা হয়েছে তাদের। খেলোয়াড়দের একাধিক বাসে করে এদিন মাঠে আনা হয়েছে এবং এক দলকে একাধিক ড্রেসিংরুম দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি দলগুলো এদিন কোনো মাসকট ছাড়াই মাঠে প্রবেশ করেছে।

  •  
  •  
  •  
  •