মঈন আলীকে ‘জঙ্গি’ বলায় তসলিমা নাসরিনকে কড়া জবাব দিল ইংলিশ ক্রিকেটাররা

moin

স্পোর্টস ডেস্কঃ ইংল্যান্ডের তারকা ক্রিকেটার মঈন আলীকে নিয়ে বিতর্কিত এক মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, ক্রিকেটার না হলে ইসলামিক স্টেট বা আইএসআইএসের সদস্য হতেন ইংলিশ তারকা মঈন আলি।

তার বিতর্কিত এ মন্তব্য নিয়ে টুইটারে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। এই টুইটের কারণে ক্ষুব্ধ হয়েছেন ইংলিশ ক্রিকেটারেরা। ইংল্যান্ড জাতীয় দলে খেলা বেন ডাকেট ও স্যাম বিলিংসরা চুপ থাকেননি। তসলিমার টুইটার আইডি বাতিলের আবেদন চেয়ে মন্তব্য করেছেন তাঁরা। পরে অবশ্য টুইটটি মুছে দিয়েছেন তসলিমা নাসরিন।

সম্প্রতি ভারতের সংবাদমাধ্যম জানায়, আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে মদ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের লোগো থাকায় মঈন নিজের জার্সি থেকে সেই প্রতিষ্ঠানের লোগো তুলে নেওয়ার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু চেন্নাই দাবি করেছে, এ সংবাদ ভুল। এরপরই টুইটটি করেন তসলিমা।

যেখানে তিনি লিখেন, “যদি মইন আলি ক্রিকেটে না আসত, তিনি সম্ভবত সিরিয়ায় যেতেন (মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক জঙ্গিদল ইসলামিক স্টেট) আইএসআইএসে যোগ দিতে।”

এর জবাবে তসলিমাকে উদ্দেশ করে পেসার জফ্রা আর্চার পরদিন লেখেন, “আপনি কি ঠিক আছেন? আমার তো মনে হয় না।”

এরপর টুইটটি মুছে ফেলেন তসলিমা। আরেকটি টুইট দিয়ে তিনি লেখেন, ‘নিন্দুকেরা ভালো করেই জানে, মঈন আলিকে নিয়ে আমার টুইটটি ছিল ব্যঙ্গাত্মক। কিন্তু আমাকে হেনস্তা করার জন্য এটাকে ইস্যু বানানো হয়েছে। কারণ, আমি চেষ্টা করি মুসলিম সমাজকে ধর্মনিরপেক্ষ করতে এবং আমি ইসলামি ধর্মান্ধতার বিরোধী। মানবজাতির অন্যতম দুর্ভাগ্য হলো, নারীবাদী বামপন্থিরাও নারীবিদ্বেষী ইসলামিস্টদের সমর্থন করে।’

ওই টুইটেরও জবাব দিয়েছেন আর্চার। রি-টুইট করেছেন, ‘ব্যঙ্গাত্মক? কেউ হাসছে না, এমনকি আপনি নিজেও না। অন্তত যেটা করতে পারেন সেটা হলো, টুইটটা মুছে ফেলতে পারেন।’

  •  
  •  
  •  
  •