দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হলেন নেইমার

স্পোর্টস ডেস্ক:
প্যারিস সেন্ত জার্মেইয়ের জন্য সুখের একটা রাত হতে পারতো। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখকে তাদের মাঠে ৩-২ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ সেমিফাইনালের পথে বড় ধাপ ফেলা, আনন্দ তো হবেই। কিন্তু সেই আনন্দ পরিপূর্ণতা পায়নি নেইমারের নিষেধাজ্ঞার দুঃসংবাদে। না, বায়ার্ন ম্যাচের কারণে নিষিদ্ধ হননি ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। ফরাসি লিগ ওয়ানে লিলের বিপক্ষে ম্যাচে মেজাজ হারানোর শাস্তি হিসেবে দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি।

নিষেধাজ্ঞা আসলে তিন ম্যাচের, তবে এক ম্যাচে আছে স্থগিত নিষেধাজ্ঞা। কার্ডসংক্রান্ত এক ম্যাচ, আর মেজাজ হারিয়ে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের দিকে তেঁড়ে যাওয়ার শাস্তি হিসেবে আরও দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ হয়েছেন সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। তবে ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন, এক ম্যাচ স্থগিত নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন তাকে। শাস্তিটা যেহেতু ফ্রান্সের ঘরোয়া ফুটবলের, তাই বায়ার্নের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনালের ফিরতি লেগে খেলতে কোনও বাধা নেই নেইমারের।

ঘটনাটা গত শনিবারের। লিলের বিপক্ষে ঘরের মাঠে বারুদে উত্তেজনা ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল পিএসজি। ১-০ গোলে পিছিয়ে থাকায় এমনিতেই মেজাজ ঠিক ছিল না নেইমারের। এর ওপর লিলের তিয়াগো দিয়ালোর সঙ্গে বল কাড়াকাড়ি করতে গিয়ে ঝামেলা বাঁধিয়ে দেন। আগেই হলুদ কার্ড দেখা নেইমারকে দ্বিতীয় হলুদের সঙ্গে লাল কার্ড দেখান রেফারি। মাটিতে পড়ে থাকা দিয়ালোকেও রেফারি দ্বিতীয় হলুদের সঙ্গে কার্ড দেখান।

এখানেই শেষ নয়, এই দুই খেলোয়াড় টানেলে গিয়ে বাকবিতণ্ডতায় জড়িয়ে পড়ে। ক্যামেরায় ধরা পড়ে, নেইমার দিয়ালোর গলায় হাত দিয়ে ধাক্কা মারছেন। তারপরই লিল খেলোয়াড় কিছু একটা বলতেই তার দিকে তেঁড়ে যান পিএসজি ফরোয়ার্ড। সেসময় সঙ্গে থাকা স্টাফ ও কর্তাব্যক্তিরা তাদের ধরে পরিস্থিতি সামাল দেন।

ওই ঘটনার শাস্তি হিসেবে নেইমারকে দুই ম্যাচ ও দিয়ালোকে এক ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছে ফরাসি ফুটবল ফেডারেশন।

কোন তিন ম্যাচ মিস করবেন নেইমার?
শনিবার ফরাসি লিগ ওয়ানে স্ত্রসবার্গের মাঠে আতিথ্য নেবে পিএসজি। এই ম্যাচটির সঙ্গে নেইমার খেলতে পারবেন না ১৮ এপ্রিল সেন্ত-এতিয়েনের বিপক্ষে ঘরের ম্যাচ। ব্রাজিলিয়ান তারকা লিগ ওয়ানে ফিরতে পারবেন ২৪ এপ্রিল মেটসের বিপক্ষে।

  •  
  •  
  •  
  •