শিথিলতা প্রত্যাহার শিশু খাদ্য আমদানিতে

নিউজ ডেস্কঃ

করোনাভাইরাস মহামারি পরবর্তী প্রভাব ও সংকট মোকাবিলায় শিশুদের খাদ্য নিশ্চিতে নবাজাতক ও শিশু খাদ্য আমদানিতে কয়েকটি শর্ত শিথিল করেছিল সরকার। কিন্তু মঙ্গলবার (৭ জুলাই) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আমদানি ও রফতানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দফতর বিজ্ঞপ্তি জারি করে এসব শিথিলতা প্রত্যাহার করেছে।

এ বিষয়ে আমদানি ও রফতানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দফতরের নিয়ন্ত্রক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মো. আওলাদ হোসেন  বলেন, শিশু খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিতে এসব খাদ্য আমদানিতে কয়েকটি শর্ত শিথিল করে গত ১১ মে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু ৭ জুলাই আরও একটি বিজ্ঞাপ্তি দিয়ে সে শিথিলতা প্রত্যাহার করা হয়েছে।

তাই এখন নবজাতক ও শিশু খাদ্য আমদানিতে অন্যান্য শর্ত মানার পাশাপশি আগের মতই নিচের শর্তগুলো মানতে হবে। শর্তগুলো হচ্ছে-

>>আমদানিকৃত ননীযুক্ত দগ্ধজাত খাদ্য ও শিশু খাদ্য টিন বা বায়ুরুদ্ধ মোড়ক বা ব্যাগ ইন বক্স এর ওপর দৃশ্যমান স্থানে ‘মায়ের দুধের বিকল্প নেই’ কথাটি বাংলায় সুস্পষ্টভাবে ও অপেক্ষাকৃত বড় হরফে লিখে রাখতে হবে।

>>মিল্ক ফুডের টিন বা বায়ুরুদ্ধ মোড়ক বা ব্যাগ ইন বক্স এর ওপর দুধের উপাদান এবং বিভিন্ন উপকরণের আনুপাতিক হার বাংলায় লিখা থাকতে হবে।

>> প্রতিটি টিনসহ বায়ুরুদ্ধ মোড়ক বা ব্যাগ ইন বক্স এর গায়ে মিল্ক ফুডের প্রকৃত ওজন (নিট ওয়েট) বাংলা বা ইংরেজিতে লিখে রাখতে হবে। পাশাপশি দুগ্ধ ও দুগ্ধজাত শিশুখাদ্য আমদানির ক্ষেত্রে পরিচালক জনস্বাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান (আইপিএইচএন) কর্তৃক প্রদত্ত রেজিস্ট্রেশন নম্বর স্পষ্ট অক্ষরে প্রতিটি টিন বা টিনসহ বায়ুরুদ্ধ মোড়ক বা ব্যাগ ইন বক্স এর গায়ে উল্লেখ থাকবে হবে।

এছাড়া আমদানি নীতি অনুয়ায়ী অন্যান্য শর্তও মেনে চলতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •