খুলেছে দোকানপাট, যেভাবে চলবে গণপরিবহন

করোনা ডেস্কঃ দেশে চলমান কঠোর বিধিনিষেধ বা লকডাউন বুধবার মধ্যরাত থেকে শিথিল করা হয়েছে। কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল করে আজ বৃহস্পতিবার থেকে সারা দেশে যানবাহন এবং দোকানপাট-শপিংমল খোলার অনুমতি দিয়েছে সরকার। রাজধানীর সড়কে চলছে গণপরিবহণ, খুলেছে দোকানপাট।

সরকার জানিয়েছে, ঈদুল আজহা উদ্‌যাপনের জন্য ১৫ থেকে ২২শে জুলাই (ঈদের পরদি) পর্যন্ত শিথিল থাকবে চলাচলে বিধিনিষেধ। বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ার ঘোষণায় এরই মধ্যে বাস-লঞ্চ-ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে।
এ ছাড়া কোরবানির পশুর হাট চালুর প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে।

বুধবার রাত ১২টার পর থেকে চলাচলে বিধিনিষেধ শিথিল হয়েছে। অনেক পরিবহণ মালিক প্রস্তুতি নিয়েছেন মধ্যরাত থেকেই বাস চালানোর। তবে, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে অর্ধেক আসন খালি রেখে বাস চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পরিবহণ মালিক সমিতি।

আজ দুপুর থেকে চলবে নৌপরিবহণও। ঢাকার সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে প্রতি বছর ঈদের সময়ে যাত্রীদের ঠাসাঠাসি ভিড় থাকে।

বিআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ বলছে, লঞ্চে ওঠার জন্য হুড়োহুড়ি ঠেকাতে টার্মিনালের পন্টুন ও গ্যাংওয়ের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে।

নৌপরিবহণ প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘ঈদযাত্রায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি না মানলে লঞ্চ মালিক ও যাত্রীদের জরিমানা করা হবে। সদরঘাটে মাস্ক ছাড়া কোনো যাত্রীকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। এ বিষয়ে নৌপুলিশ ও লঞ্চ মালিকদের যথাযথ নির্দেশনা পালনের আহ্বান জানাচ্ছি।’

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: ,