একদিনে খুলনার হাসপাতালগুলোতে ২৪ জনের মৃত্যু !

করোনা ডেস্ক:

খুলনার চার হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (১৭ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে রোববার (১৮ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে করোনায় ১৭ জন এবং উপসর্গ নিয়ে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে ১৫ জন, শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনজন, জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দুজন এবং গাজী মেডিক্যাল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার (১৭ জুলাই) খুলনায় ১১ জনের মৃত্যু হয়। শুক্রবার (৯ জুলাই) ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল। যা ছিলো এ পর্যন্ত খুলনার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

রবিবার (১৮ জুলাই) করোনা হাসপাতালের ফোকালপার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৮ জন ও উপসর্গ নিয়ে ৭ জন মিলে মোট ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন- ঝিনাইদহের মহেশপুরের হোসনে আরা বেগম (৫০), পিরোজপুরের কাউখালির হাসি রাণী (৫০), খুলনার দিঘলিয়ার জাহানারা (৬০) ও নবিজা (৭০), যশোরের ঝিকরগাছার মুক্তা (৩০), খুলনার শিরোমনির মীর আব্দুল গফুর (৯০), বাগেরহাটের চাঁন মিয়া (৬৫) ও হাফিজ শেখ (৫৭)।

জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে খুলনার বটিয়াঘাটার সুচিত্রা (৬০) ও নড়াইল লোহাগড়ার শামসুন্নাহার (৫৫) নামের দুই রোগী মারা গেছেন।

বেসরকারি গাজী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুলনার ৪ রোগী মারা গেছেন। তারা হলেন- খুলনার কয়রা উপজেলার হাতিয়ারডাঙ্গার নীতিশ কুমার বাছাড় (৬৫), তেরখাদার জুনারীর দাউদ আলী তালুকদার (৮০), ফুলতলা শিরোমনির মিয়া মাহমুদুর রহমান (৯১) ও যশোর সদরের রোজি (৬৫)।

শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের ফোকাল পারসন ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন- খুলনার দিঘলিয়ার সোলেমান (৮০), পাইকগাছার জমির উদ্দিন (৭৫) ও যশোরের কুতুবুদ্দিন (৬৬)।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3