বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় কর্মশালা অনুষ্ঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের আওতায় “২০২১-২২ অর্থ বছরের প্রণীত কর্মপরিকল্পনা অবহিতকরণ” শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের সহযোগিতায় এবং ময়মনসিংহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৈয়দ নজরুল ইসলাম অডিটোরিয়ামে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আসাদুল্লাহ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ বশির আহম্মেদ সরকার।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের পরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান এবং সভাপতিত্ব করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল মাজেদ।

এ সময় বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের পরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ জিয়াউর রহমান স্বাগত বক্তব্যে বলেন, প্রকল্পটি ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের ৬ টি জেলার ৬০ টি উপজেলায় বাস্তবায়িত হবে। এটি একনেক সভায় ২১/০৯/২০২০ তারিখে অনুমোদন লাভ করে। এর প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়ে ১২৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। ২০২১-২২ অর্থবছরে এডিবি বরাদ্দ পেয়েছি ৩৮০ লাখ টাকা। যা রাজস্ব ১৬২৩ লাখ টাকা এবং মূলধন ১৪৫৭ লাখ টাকা। গত অর্থ বছরের আর্থিক অগ্রগতি ৯৯.৯৮% এবং ভৌত অগ্রগতি ১০০%।

তিনি বলেন, প্রকল্পটি মোট চারটি উদ্দেশ্য নিয়ে বাস্তবায়ন হবে। প্রথমত, স্থায়ী ও মৌসুমি চাষীদের চাষের আওতায় এনে প্রকল্প এলাকার গড় শস্য নিবিড়তা ২০৮ থেকে ২১০% বৃদ্ধি করা। দ্বিতীয়ত, বিদ্যমান শস্য বিন্যাসে বিভিন্ন উচ্চমানের ফসল আবাদের মাধ্যমে বহুরূপী ফসল আবাদ এলাকা ১২ লাখ ৮৯ হাজার ৬৯৪ হেক্টর থেকে ১৩ লাখ ১৫ হাজার ৪৮২ হেক্টর বৃদ্ধি করা। তৃতীয়ত, উদ্ভাবিত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে ৮০ থেকে ৮২% উৎপাদন বৃদ্ধি করা এবং ৩০ থেকে ৩২% নারী অংশগ্রহণের মাধ্যমে নারী ক্ষমতায়ন বৃদ্ধি করা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ বশির আহম্মেদ সরকার বলেন, আমাদের প্রকল্পের উদ্দেশ্য পতিত জমি চাষের আওতায় আনা এবং ময়মনসিংহ অঞ্চলের ফসলের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ। এজন্য প্রয়োজন রিসার্চ অর্গানাইজেশন ও সম্প্রসারণের মধ্যে নিবিড় সমন্বয়ের প্রয়োজন। আমি মনে করি আজকের এই কর্মশালার মাধ্যমে তা সম্ভব হবে। কৃষকেরাই এ প্রকল্পের মূল, আমরা তাদের যান্ত্রিকীকরণের দিকে নিয়ে যাচ্ছি। আশা করি এ প্রকল্পের মাধ্যমে তাদের উন্নয়ন বাস্তবায়িত হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আসাদুল্লাহ বলেন, এই প্রকল্পটির উদ্দেশ্য ও কার্যক্রম অত্যন্ত মহৎ এবং সেই সাথে কঠিন। এসময় প্রকল্প পরিচালনার জন্য তিনি নানা দিকনির্দেশনা প্রদান করেন।

সমাপনী বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল মাজেদ বাসাবাড়ির আশেপাশের পতিত জমিতে আদা-হলুদ চাষের মাধ্যমে ক্রপিং ইনটেনসিটি বৃদ্ধি, মডেল গ্রাম এবং কৃষক দল গঠনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: