বাসচালকের ছেলে দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত

sadik

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খান দ্বিতীয় মেয়াদের জন্য লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে দিয়ে ইউরোপের কোনো দেশে মুসলিম জনপ্রতিনিধি হিসেবে টানা দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন লেবার পার্টির এ নেতা।

২০১৬ সালে তিনি প্রথম বারের মতো লন্ডনের মেয়র নির্বাচিত হন। ইউরোপের ইতিহাসে তিনি প্রথম মুসলিম মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এবারের নির্বাচনে সাদিক খান মোট ভোটের ৫২ শতাংশ পেয়েছেন। লন্ডনের মেয়র হিসেবে তিনি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভোট পেয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট সংখ্যা ১২ লাখ ৬ হাজার ৩৪টি, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির শন বেলি পেয়েছেন ৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬০১ ভোট।

নির্বাচনে তৃতীয় হয়েছেন গ্রিন পার্টির সিয়ান বেরি এবং চতুর্থ হয়েছেন লিবারেল ডেমোক্র্যাট দলের লইসা পরিট। লিবারেল ডেমোক্র্যাট দলের লইসা পরিটসহ অন্য ১৬ প্রার্থীই নির্বাচনে তাদের জামানত হারিয়েছেন। নির্বাচনে চতুর্থ থেকে ২০তম স্থান পর্যন্ত কোনো প্রার্থীই মোট ভোটের ৫ শতাংশ পাননি।

উল্লেখ্য পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাদিক খানের জন্ম ১৯৭০ সালের ৮ অক্টোবর সাউথ লন্ডনে। তিনি শ্রমজীবী সুন্নি মুসলিম পরিবারের সন্তান। তার দাদা ১৯৪৭ সাথে ভারতবর্ষ বিভক্তির সময় যুক্তপ্রদেশের লক্ষ্ণৌ থেকে পাকিস্তানে চলে যান।

তার বাবা আমানুল্লাহ ও মা সেরুন ১৯৬৮ সালে পাকিস্তান থেকে লন্ডন যান। সাদিক খান ছিলেন তার মা-বাবার আট সন্তনের পঞ্চম। আমানুল্লাহ বাসচালক হিসেবে কাজ করেছিলেন। আর মানবাধিকার আইনজীবী। তার স্ত্রীর নাম সাদিয়া। তাদের দু’মেয়ে রয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3