অবশেষে শুরু হলো ভর্তিযুদ্ধ, বাকৃবিতে ঢাবি “ক” ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

রোহান ইসলাম, নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আজ থেকে (১ অক্টোবর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে। এবছর করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষার আসন বরাদ্দ নিশ্চিত করার জন্য ঢাকার বাইরেও বিভিন্ন জায়গায় ভর্তির পরীক্ষা কেন্দ্র করা হয়েছে।

ঢাবি ছাড়াও অন্যান্য কেন্দ্র গুলো হলোঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ময়মনসিংহ), রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (সিলেট), বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় এবং বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (রংপুর)৷

জানা গেছে, আজ বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত “ক” ইউনিটের পরীক্ষায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে (ময়মনসিংহ) মোট ৭৮০৬ জন অংশ নেবে। এরপর ২ অক্টোবর কলা অনুষদভুক্ত খ ইউনিটে ৫০৭০ জন অংশ নেবে।

আজকের “ক” ইউনিটের ফোকাল পয়েন্ট ভেটেরিনারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মকবুল হোসেন বলেন, করোনা মহামারি মোকাবেলা করে আজ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষাগুলোর দ্বার খুললো। আজ অনুষ্ঠিত ঢাবি “ক” ইউনিটের পরীক্ষা আমরা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছি। পরীক্ষার্থীদের উপস্থিতিও সন্তোষজনক ছিলো।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও গবেষক ড. মো. সহিদুজ্জামান বলেন, দীর্ঘদিন পর ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় শিক্ষার্থীরা কিছুটা হলেও অনিশ্চয়তা কাটিয়ে স্বাভাবিক পড়াশোনার গতিতে ফিরে এসেছে। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা স্বাস্থ্য বিধি মেনে পরীক্ষা নিয়েছি। সর্বোপরি এক উৎসবমুখর পরিবেশে আজকের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আশাকরি এই ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।

এদিকে নিজ বিভাগে এবং বাড়ির কাছে পরীক্ষা দিতে পেরে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীরা অনেক খুশি।  তারা বাকৃবি’র সুন্দর পরিবেশে পরীক্ষা দিতে পেরে আনন্দিত। এজন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানান তারা। করোনাকালীন স্বাস্থ্য ঝুঁকি ও ভোগান্তির কথা বিবেচনা করে নিজ এলাকায় ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র করে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেওয়ায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

উল্লেখ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ইউনিটে এবার মোট ১২০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা হবে। সেখানে মূল পরীক্ষায় (বহুনির্বাচনী ও লিখিত) ১০০ এবং এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ১০ করে মোট ২০ নম্বর থাকবে। ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনী এবং ৪০ নম্বরের লিখিত অংশ থাকবে। উভয় অংশের জন্য ৪৫ মিনিট করে সময় থাকবে। তবে চ ইউনিটের ৪০ নম্বরের বহুনির্বাচনী পরীক্ষার জন্য ৩০ মিনিট আর ৬০ নম্বরের অঙ্কন পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫টি ইউনিটে ৭ হাজার ১৪৮টি আসনের বিপরীতে এবার মোট আবেদন করেছেন ৩ লাখ ২৪ হাজার ৩৪০ জন। সে হিসেবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ৪৫ জন।

গত বছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার থাকলে করোনা পরিস্থিতির কারণে তা পিছিয়ে যায়।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: ,