রূপালী পর্দায় ফিরছেন প্রয়াত মান্না

বিনোদন ডেস্ক: মৃত্যুর এক যুগ পর অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে চিত্রনায়ক মান্না অভিনীত শেষ সিনেমা ‘জীবন যন্ত্রনা’। এক যুগ ধরে সিনেমাটি সেন্সর বোর্ডে আটকে থাকার পর অবশেষে গেল মাসে মুক্তির অনুমতি পেল মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক এই সিনেমাটি। আগামী বছরের মার্চে সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাবে।

জানা গেছে, ২০০৫ সালে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ‘লীলামন্থন’ নামের সিনেমাটির শুটিং শুরু করেন নায়ক মান্না। সিনেমাটির কিছু দৃশ্য বাকি থাকতেই ২০০৮ সালে নায়কের মৃত্যু হয়। বাকি অংশের কাজ শেষ করে সিনেমাটি ২০১১ সালে সেন্সর বোর্ডে জমা পড়ে; কিন্তু নামের কারণে দীর্ঘ সময় সেন্সরে আটকে থাকে সিনেমাটি। অবশেষে নাম বদলে প্রদর্শনের অনুমতি পেয়েছে সিনেমাটি। জীবন যন্ত্রনা’ সিনেমাটিতে মুক্তিযুদ্ধের ভিন্ন এক গল্প উঠে এসেছে। তুলে ধরা হয়েছে দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে যৌনকর্মীদের অবদানের কথা। ১৯৭১ সালের দেশের এক যৌনপল্লীর কর্মীদের জীবনের ঘাত প্রতিঘাত আর বেঁচে থাকার কাহিনীকে রুপালি পর্দায় ফুটিয়ে তুলেছেন পরিচালক জাহিদ হোসেন।

জাহিদ হোসেন বলেন, ‘সিনেমাতে দেখা যাবে ৭১ সালের একটি যৌনকর্মীদের বাড়ির গল্প। দেশের মুক্তিযুদ্ধে তাদের যে অবদান তা এই সিনেমায় তুলে ধরা হয়েছে। এটি একটি গল্পের সিনেমা না। এখানে সিনেমার প্রধান চরিত্রের প্রতিটি শিল্পীর নিজস্ব একটি গল্প। একসঙ্গে গিয়ে গল্পগুলো এক হয়ে শেষ হয়। আশা করছি, ভিন্ন ঘরানার এই সিনেমাটি দর্শক পছন্দ করবেন।’

এতে বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন- বাপ্পারাজ, মৌসুমী, পপি, মিশা সওদাগর, শাহনূর, মুক্তি, আলী রাজ, আনোয়ারা, শহীদুল আলম সাচ্চু, দীঘি, আফজাল শরীফ প্রমুখ।

‘লীলামন্থন’ নামে সিনেমাটির নির্মাণ কাজ শুরু হলেও সেন্সরে গিয়ে নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় ‘জীবন যন্ত্রনা’। নির্মাণের পর পার হয়েছে বহু বছর। মারা গেছেন সিনেমার প্রধান চরিত্রে অভিনয় করা ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক মান্না।

আর এই সিনেমায় শিশুশিল্পী চরিত্রে অভিনয় করা দীঘি নিজেই এখন চিত্রনায়িকা। তবুও শুটিং শেষের ১৩ বছর পর মুক্তিযুদ্ধের ভিন্নধর্মী গল্প আর প্রয়াত নায়ক মান্নার টানেই দর্শক দেখবেন সিনেমাটি, এমনটাই প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3