ইন্দোনেশিয়ায় করোনা রোগীর মৃতদেহ সৎকার করছে স্বেচ্ছাসেবক দল

রাগিব হাসান বর্ষণঃ ইন্দোনেশিয়ার অধিবাসীরা করোনাভাইরাসের প্রকোপে মানবেতর জীবনযাপন করছে। মৃতের সংখ্যা এতটাই বৃদ্ধি পেয়েছে যে সরকারি কর্মীদের বদলে এখন মৃতদের সৎকার ও দাফনের কাজ পুরোটাই স্বেচ্ছাসেবকদের দ্বারা সম্পন্ন করা হচ্ছে।

রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়াতে হাসপাতালে জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না যার ফলে অধিকাংশ রোগীকে নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে এবং সেখান থেকে কেউ মারা গেলে স্বেচ্ছাসেবকরা সেই মরদেহের সৎকার বা পরিবারের কাছে হস্তান্তরের কাজ করে যাচ্ছে বিগত এক মাস ধরে।

অনেক রোগী বিশেষ করে বয়ষ্ক যারা তারা হাসপাতালে জায়গা না পাওয়াতে নিজ ঘরেই মারা যাচ্ছেন, আইসোলেশনে মারা যাওয়া রোগীর সংখ্যা এত বেশি যে মাঝে মাঝে কিছু মৃতদেহ সৎকার করতে কয়েকদিন লেগে যাচ্ছে।

দক্ষিন জাকার্তার, বোগোর শহরে ৩৫ জনের একটি স্বেচ্ছাসেবক দল গত এক মাস ধরে কাজ করে যাচ্ছে। পরিস্থিতি খুবই খারাপ হওয়ায় তাদের ২৪ ঘন্টা কাজ করা লাগছে বলে জানান একজন স্বেচ্ছাসেবক।

উল্লেখ্য শুধুমাত্র জাভাতেই জুন মাসে ৬২৫ জন মারা গেছেন কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হয়ে।

গত ঈদের পর থেকেই মূলত ইন্দোনেশিয়ায় কোভিড আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধি পেতে থাকে যার অধিকাংশই ভারতীয় ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট বলে জানাচ্ছে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

জনসংখ্যার দিক থেকে চতুর্থ ইন্দোনেশিয়াতে রোজ গড়ে ৫৭০০০ রোগী সনাক্ত হচ্ছে, পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে হাসপাতাল আর আইসোলেশন সেন্টারের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরাদের মধ্যে অনেকেই কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন, মূলত স্বাস্থ্য কর্মী সংকটের কারণেই স্বেচ্ছাসেবকদের সাহায্য নেয়া হচ্ছে।

সূত্রঃ আল জাজিরা

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: , , , ,