বাবুই পাখির পর এবার বিষ দিয়ে কবুতর হত্যা!

পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে বাসা ভেঙে বাবুই পাখির ছানা হত্যার রেশ কাটতে না কাটতেই ধানের বীজতলায় বিষপ্রয়োগে কবুতর হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার বিকেলে উপজেলার পাড়েরহাটের চর বারৈখালী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, জাহাঙ্গীর হোসেন নামের এক কৃষক চালের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে তার ধানের বীজতলায় ছিটিয়ে দেন। এতে একই গ্রামের ওয়াদুদ শেখের ছেলে ফেরদৌস শেখের পালিত ১১টি কবুতর বিষমেশানো চাল খেয়ে মারা যায়। এছাড়া তিনটি কবুতর বিষাক্রান্ত হয়ে ছটফট করছে। আর কবুতরগুলো ক্ষেত থেকে খাবার এনে খাওয়ানোর পরে ১২টি ছানা (বাচ্চা) মারা গেছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, আমার বীজতলায় বপনকৃত বীজ কবুতর ও পাখি খেয়ে সব সাবার করে ফেলেছে। তাই চালের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে ছিটিয়ে দিয়েছি। এখন যে কবুতর মারা গেছে তাতে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা যে সিদ্ধান্ত দেবেন তা আমি মেনে নিতে রাজি আছি।

ক্ষতিগ্রস্ত কবুতরের মালিক ফেরদৌস শেখ বলেন, আমার কবুতরগুলো খুঁজে না পেয়ে মাঠে গিয়ে দেখি জাহাঙ্গীর হোসেনের বীজতলায় মৃত অবস্থায় পড়ে আছে। বিষয়টি জাহাঙ্গীর মিমাংসা করবেন বলে জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, ইন্দুরকানী উপজেলার দক্ষিণ ভবানিপুর গ্রামে গত ১০ এপ্রিল বাসা ভেঙে দুই শতাধিক বাবুই পাখির ছানা মেরে ফেলেন লুৎফর রহমান মোল্লা নামের এক কৃষক এবং তার অপর দুই সহযোগী। এ ঘটনার পর পিরোজপুর জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাদের তিনজনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3