খালেদার বিদেশ যাওয়া নিয়ে যা বললেন আইনমন্ত্রী

anisul

নিউজ ডেস্কঃ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার সুযোগ চেয়ে সরকারের কাছে তাঁর পরিবারের করা আবেদন আইন মন্ত্রণালয়ে পৌঁছেছে।

এ বিষয়ে আবেদন-সংক্রান্ত ফাইল দেখে মতামত দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বৃহস্পতিবার (৬ মে) দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এসংক্রান্ত একটি আবেদন খালেদা জিয়ার ছোট ভাই শামীম এস্কান্দার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের বাসায় গিয়ে পৌঁছে দেন। আবেদনটি পর্যালোচনার জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আইনমন্ত্রী জানান, জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নেয়ার আবেদন-সংক্রান্ত ফাইলটি গতকাল বুধবার রাতে আইন মন্ত্রণালয়ের ও বিচার বিভাগের সচিবের কাছে এসেছে। সেখান থেকে যথাযথ প্রক্রিয়া শেষে আবেদনটি তার কাছে আসবে। এরপর সেটি দেখে মতামত দেয়া হবে।

আবেদনে হাতে আসলে কী ধরনের মতামত নেয়া হতে পারে এমন প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, আবেদনটি এখনো আমার হাতে এসে পৌঁছায়নি। আবেদনটি আসার পর দেখে বলতে পারব।

এদিকে খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেওয়ার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। সরকারে অনুমতি মিললে আজ বৃহস্পতিবারের (৬ মে) মধ্যেই খালেদা জিয়াকে লন্ডন নেওয়া হতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

খালেদা জিয়াকে হাসপাতাল থেকে বিমানবন্দরে পৌঁছে দেওয়ার অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে বিএনপির পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বিষয়ে এখনো কোনো কিছু প্রকাশ করা হয়নি।

এদিকে আনুষ্ঠানিকভাবে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবস্থা ভালো বলা হলেও বাস্তবে তাঁর শরীরে করোনা-পরবর্তী জটিলতা দেখা দিয়েছে। তাঁর ফুসফুসে পানি জমছে এবং এরই মধ্যে সেখান থেকে তিন ব্যাগ ফ্লুইড বের করা হয়েছে। তাঁর ডায়াবেটিস ও অক্সিজেনের মাত্রাও ওঠানামা করছে। এ জন্যই তাঁকে করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) রাখা হয়েছে।

চিকিত্সকরা বলছেন, করোনা-পরবর্তী এই জটিলতা বাংলাদেশের অনেক রোগীর ক্ষেত্রেই এখন দেখা যাচ্ছে। এগুলোকে ‘পোস্ট কভিড কমপ্লিকেশন’ বলা হয়। বয়স্ক রোগীদের ক্ষেত্রে এই জটিলতা বেশি দেখা যাচ্ছে। ৭৬ বছর বয়স্ক খালেদা জিয়া ডায়াবেটিস ও আর্থ্রাইটিসসহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন। তাঁর কিডনির সমস্যাও রয়েছে। এ কারণে তাঁর চিকিত্সকদের কেউ কেউ মনে করেন, করোনা-পরবর্তী পৎসয়ে যেকোনো সময় তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে পারে। সূত্র মতে, এমন আশঙ্কা থেকেই খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেওয়ার কথা উঠছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: ,