রোজা রেখে করোনার টিকা নিতে বাধা নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ব্রিটেনের বসবাসকারী মুসলিম সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ তাদের সম্প্রদায়গুলিকে বলে দিয়েছেন যে রমজান মাসে সময় রোজা রাখা অবস্থায় করোনভাইরাস টিকা গ্রহণে কোনও বিরোধ নেই।

বার্মিনহাম গ্রিণ লেন মসজিদের ঈমাম মোস্তফা হোসেন জানিয়েছেন, টিকার কোন পুষ্টি গুণ না থাকায়-এতে রোজা ভঙ্গ হবে না। সুতরাং করোনার টিকা গ্রহণে কোন বাধা নেই।

আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় ইবাদত সিয়াম পালন। সিয়াম বা রোজা হলো ভোর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ইবাদতের উদ্দেশ্যে পানাহার ও যৌনসম্ভোগ থেকে বিরত থাকা। এসময় রোজাদার ব্যক্তি মুখ, নাক ও অন্যান্য খোলা অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ দিয়ে কোনো খাবার, পানীয় ও ওষুধ জাতীয় কোনো কিছু গ্রহণ করতে পারবে না। কিন্তু করোনার টিকা সুঁচের মাধ্যমে (ইন্ট্রামাস্কুলার) মাংসে নেওয়া হয়। এতে রোজা ভাঙবে না।

ইনসুলিন ও স্যালাইনের মতো রোজা রেখে করোনার ভ্যাকসিনও নেওয়া যাবে বলে ফতোয়া দিয়েছেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে বাণিজ্য নগরী দুবাইয়ের গ্র্যান্ড মুফতি শায়খ ড. আহমাদ বিন আব্দুল আজিজ আল-হাদ্দাদ।

ফতোয়ায় আরও বলা হয়, সুঁচের মাধ্যমে মাংসে টিকা নিলে রোজা ভাঙবে না বিধায় রোজাদার ব্যক্তি করোনার টিকা গ্রহণ করতে পারবেন। নাকের শ্লেষ্মা বা রক্তের ফোঁটা থেকে করোনা পরীক্ষার নমুনা নেওয়া হলেও রোজা ভাঙবে না। তাই প্রয়োজনে রোজা রেখে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষাও করা যাবে।

এদিকে, গেল ১৪ মার্চ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সভাকক্ষে ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. মো. মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বলা হয়, রমজান মাসে রোজাদার ব্যক্তি দিনের বেলায় শরীরে করোনা ভাইরাসের টিকা গ্রহণ করলে রোজা ভঙ্গ হবে না। আসন্ন রমজান মাসে কভিড-১৯ এর চলমান টিকা কার্যক্রম বিষয়ে আলোচনায় আলেমগণের সর্বসম্মত মতামতের ভিত্তিতে এ মত জানানো হয়।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনার টিকাদান কার্যক্রম চলছে। সম্প্রতি যারা করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন, তাদের অনেকেরই দ্বিতীয় ডোজের নির্ধারিত তারিখ পড়বে রমজানে। এ নিয়ে অনেক ধর্মপ্রাণ মুসলিম দ্বিধা দ্বন্ধের মধ্যে রয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে, বিশ্বের অনেক মুসলিম নেতৃবৃন্দ, ইসলামিক স্কলারসহ বাংলাদেশের ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মতে-রোজা রেখে করোনার টিকা নিতে বিরোধ নেই।

 

  •  
  •  
  •  
  •  

Tags: