প্লাস্টিকের দূষণ ঠেকাতে অভিনব পন্থা আবিষ্কার করলেন বিজ্ঞানীরা

মোঃ এম.এন. আজিম, নিজস্ব প্রতিবেদক

প্লাস্টিকের টুকরো বা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশ যাদের বলা হয় মাইক্রোপ্লাস্টিকগুলি। সাধারণত বড় প্লাস্টিকগুলো প্রকৃতিতে ভেঙ্গে গিয়ে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অংশে পরিণত হয়।পরিবেশে এগুলি ভূপৃষ্ঠের উচ্চস্তরে জমা থাকে। এগুলো ক্ষুদ্রাকার হওয়ায় এদের স্থানান্তর বা রিসাইকেল করা সম্ভব হয়ে ওঠে না।

হংকং পলিটেকনিক ইউনিভার্সিটির গবেষকরা এই মাইক্রোপ্লাস্টিকগুলো পরিবেশে ছড়িয়ে পড়া রোধে (আটকে রাখার জন্য)একটি নতুন কৌশল প্রস্তাব করেছেন, যাতে তাদের পুনর্ব্যবহারের জন্য পরিবেশ থেকে সরিয়ে দেওয়া সম্ভব হয়।

গবেষণার নেতৃত্বদানকারী অধ্যাপক ইয়াং লিউ বলেছেন, “ প্লাস্টিক সহজেই জৈব বস্তুতে পরিণত হয় না। এগুলো সাধারণ দীর্ঘদিন পরিবেশে অবিকৃত অবস্থায় থাকে। ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র প্লাস্টিক কণাগুলো উদ্ভিদ ও প্রাণির মাধ্যমে খাদ্যশৃঙ্খলে প্রবেশ করে।অর্থ্যাৎ এগুলো বিভিন্ন খাবারে চলে যায় এবং দীর্ঘদিন অবিকৃত অবস্থায় থাকে।

মাইক্রোপ্লাস্টিকগুলির বহির্ভাগ বিস্তৃত হওয়ায় এগুলোর শোষণের ক্ষমতা বেশি হওয়ার কারণে এরা বিভিন্ন ক্ষতিকারক কীটনাশক, ভারী ধাতু এবং ওষুধের অবশিষ্টাংশগুলিকে শোষণ করতে পারে। এই ক্ষতিকারক পদার্থযুক্ত প্লাস্টিকের ক্ষুদ্র অংশগুলো অনিচ্ছাকৃতভাবে দীর্ঘদীন গ্রহণের ফলে প্রকৃতিতে অবিস্থত মানুষ ও অন্যান্য প্রাণির বিষাক্রিয়া ঘটছে। এছাড়া ময়লাপানি শোধন প্রাক্রিয়ায় মাইক্রোপ্লাস্টিক দুরীভূত না বা অপসারণ করা না যাওয়ায় এগুলো প্রকৃতিতে নিঃসরণ হচ্ছে।

হংকং পলিটেকনিক বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা এই ক্ষতিকর মাইক্রোপ্লাস্টিগুলোকে ফাঁদে ফেলতে ব্যাকটেরিয়া বায়োফিল্মস (ব্যাকটেরিয়ার জাল)ব্যবহার করার প্রস্তাব দিয়েছেন। তারপর বায়োফিল্ম এ আটকে পড়া মাইক্রোপ্লাস্টিকগুলো সংগ্রহ করে পরিবেশকে দুষনমুক্ত করা যেতে পারে।

সুত্রঃ ইএন্ডই ম্যাগজিন

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3

Tags: , ,