চলন শক্তিহীন প্রাণীদের স্বাভাবিক জীবনের স্বপ্ন দেখাচ্ছে প্রস্থেটিকস

সাবরিন জাহান:

প্রস্থেটিকসের মাধ্যমে মানুষের চিকিৎসার কথা বর্তমান বিশ্বের মোটামুটি সবাই জানে। হাত,পা,আঙুল বা মানবদেহের অন্য কোনো অঙ্গ যখন দুর্ঘটনাবশত কেটে ফেলতে হয় বা হারিয়ে যায় অথবা যদি জন্মগত বিকলাঙ্গতা থাকে,সেক্ষেত্রে একটি কৃত্রিম ডিভাইস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে।এটি একটি কৃত্রিম অঙ্গ যা গতিশীলতা প্রদান করে এবং প্রতিদিনের ক্রিয়াকলাপ স্বভাবিকভাবে পরিচালনায় সহায়তা করে।

প্রস্থেটিকসের মাধ্যমে মানুষের চিকিৎসা সম্ভব হলে প্রাণীরা কেন এর সুযোগ থেকে বাদ থাকবে, এই চিন্তা থেকেই এককভাবে লড়াই শুরু করেন এক মার্কিন মিলিয়নেয়ার। চলনশক্তিহীন প্রাণীদের প্রস্থেটিকস আর অর্থোটিক্সের মাধ্যমেই নতুন জীবনদান করে চলেছেন এই ব্যক্তি। পক্ষাঘাতগ্রস্ত প্রাণীদের চলাচলে সক্ষম করতে একের পর এক ডিভাইস তৈরি করে চলেছেন এই মার্কিন উদ্ভাবক। আর তাঁর রোগীদের তালিকায় রয়েছে কাঠবেড়ালি থেকে শুরু করে হাতি পর্যন্ত সমস্ত প্রাণীই।

তিনি হলেন আমেরিকার টেলিভিশন শো ‘উইজার্ড ইন প’স’-এর কেন্দ্রীয় চরিত্র ডেরিক ক্যাম্পানা। না,ডেরিক কোনো কাল্পনিক চরিত্র নন। কাল্পনিক নয় তাঁর শো-তে হাজির হওয়ার পোষ্যরাও।বাস্তবেই এমন নজির স্থাপন করেছেন তিনি।

২০০৫ সাল প্রথম এই উদ্যোগ নিয়ে মাঠে নামেন ক্যাম্পানা। প্রথমে ব্যক্তিগত অর্থ বিনিয়োগ করেই এমন চিকিৎসা চালাতেন ক্যাম্পানা। খুলে ফেলেছিলেন আস্ত এক ডাক্তারখানা। নাম ‘উইজার্ড অফ প’স’। তবে এমন এক ব্যয়বহুল উদ্যোগকে একা ধরে রাখা প্রায় অসম্ভব আর তাই সাধারণের থেকে সাহায্যের আবেদন করেন তিনি, শুরু করেন টেলিভিশন শো।

তার প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ দেখা যায় চাকার ওপর ভর করে এগিয়ে যাচ্ছে হাঁস। আবার কখনো ছোট্ট ঠেলাগাড়ির মতো যন্ত্র চেপে ঘুরে বেড়াচ্ছে পোষ্য প্রাণী। এমনটা বেড়াল, কচ্ছপ, কাঠবেড়ালি, হরিণ, উট কিংবা গরুসহ আরও অনেক প্রাণীর ক্ষেত্রেই দেখা যায়। তারা প্রত্যেকেই প্রতিবন্ধী। সাধারণত প্রস্থেটিকের চারটি প্রধান ধরন আছে, ট্রান্সড্রিয়াল, ট্রান্সফরমাল, ট্রান্সটিবিয়াল এবং ট্রান্সহিউমরাল। তবে কিছু পরিবর্তন করে অন্যান্য স্থানের উপযুক্ত করে ব্যবহার করা যেতে পারে।

বর্তমানে অক্লান্তভাবেই সেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ক্যাম্পানা। ভার্জিনিয়ায় নিজের বাড়িতেই তৈরি করে ফেলেছেন প্রস্থেটিক অঙ্গের ম্যানুফ্যাকচারিং বেস। এখন থ্রি-ডি প্রিন্টিং-এর প্রযুক্তির কল্যাণে গতি বেড়েছে উৎপাদনেও। বর্তমানে পৃথিবীর সমস্ত অবলা জীবকে পক্ষাঘাতের যন্ত্রণামুক্ত করার প্রয়াসে শুধু আমেরিকাই নয়, গোটা বিশ্বেই পোষ্যদের জন্য বিশেষভাবে নির্মিত এই প্রস্থেটিক অঙ্গ সরবরাহ করেন ক্যাম্পানা।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3