রাবিতে শিক্ষক লাঞ্ছনার ঘটনায় অভিযুক্তদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবি

নিউজ ডেস্ক: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিভাগের অধ্যাপক মো. মোইজুর রহমানকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় অভিযুক্তদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবি উঠেছে।

রোববার বেলা ১১টায় শহীদ হবিবুর রহমান হল মাঠে ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ) বনাম ভেটেরিনারি বিভাগের খেলা চলাকালে রেফারির সিদ্ধান্ত নিয়ে দুই দলের মধ্যে মারামারি হয়। এসময় ভিডিও ফুটেজে অধ্যাপক মোইজুর রহমানের টি–শার্টের কলার ধরে টানাহেঁচড়া করেন আইবিএ শিক্ষার্থী ও শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সিনহা। একই সাথে আইবিএ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈকত রায়হানকে লাঠি হাতে তেড়ে আসতে দেখা যায়।

এ ঘটনায় জড়িত শিক্ষার্থীদের ছাত্রত্ব বাতিলের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন ভেটেরিনারি বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ঘটনার প্রতিবাদে এক সপ্তাহের জন্য সব ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের পাশাপাশি তিন দফা দাবি জানানো হয়। দাবিগুলো হলো—আবু সিনহার ছাত্রত্ব বাতিল করতে হবে; ভিডিও ফুটেজ দেখে তদন্ত সাপেক্ষে জড়িত শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে এবং আন্তবিভাগ প্রতিযোগিতার যেকোনো খেলা চলাকালে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বিভাগীয় একাডেমিক কমিটির সদস্যরা আলোচনা করে এবং এ লাঞ্ছনার বিষয়ে উপযুক্ত শাস্তি দাবি করে আবু সিনহা সৌমিকসহ লাঞ্ছনাকারী ছাত্রদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবি জানায়।

সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক বলেন, এ ঘটনায় ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জহুরুল আনিসকে আহ্বায়ক করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনে ওই শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের সত্যতা পেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানান তিনি।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3