করোনাকালে দোকান বন্ধ করতে বলায় আনসারকর্মীকে খুন!

lock

নিউজ ডেস্কঃ করোনাকালে দোকানের লাইট বন্ধ করতে বলায় রাজশাহীতে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তবে স্বজনদের দাবি, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

জানা গেছে, সন্ধ্যায় নগরীর হেতমখাঁ সবজি পাড়া বিদ্যুৎ অফিসের সামনে একটি চায়ের দোকানে আড্ডা দিচ্ছিলেন কয়েকজন বন্ধু।

এ সময় করোনাকালে দোকানের লাইট বন্ধ করতে বলেন মিজানুর রহমান। এতে বাধা দেন মাধব। এ সময় কথা কাটাকাটি হলে অন্যবন্ধুরা তাদের সরিয়ে দেন। তবে এর কিছুক্ষণর পর বাড়ি থেকে ছুরি নিয়ে এসে মিজানকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন মাধব।

এ সময় স্থানীয় দ্রুত গুরুতর আহত মিজানকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয়রা বলেন, তারা এখানে আড্ডা দিচ্ছিলেন। মিজান এসে বলেন, এখন লকডাউন চলছে। তোমরা চলে যাও। মূলত এই কথা থেকেও গণ্ডগোল শুরু হয়।

পরে স্থানীয়রা মাধবের বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভ করে ও অভিযুক্তকে দ্রুত বিচারের দাবি জানান। এ ঘটনার পর উত্তেজনা ঠেকাতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। তবে এ নিয়ে কথা বলেনি পুলিশ।

নিহত মিজানুর রহমান মিজান ভলিবল খেলোয়াড়, তিনি আনসার বাহিনীর সদস্য।

  •  
  •  
  •  
  •