ফলের বাজারে জ্বালানির প্রভাব

নিউজ ডেস্ক:
জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বিভিন্ন পণ্যে। ফলের বাজারেও জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়েছে।

গত তিনদিনে বিভিন্ন ফলের দাম অস্বাভাবিক বেড়ে গেছে।আপেল ও কমলার কেজি ৩০০ টাকা ছাড়িয়েছে। আড়াইশো টাকা ছুঁয়েছে আমের কেজি।আর আঙুরের দাম কেজিতে ৮০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৬০ টাকা দরে।

দাম বেড়েছে কমলা, মাল্টা, নাটফল, আনার ও আনারসেরও। জ্বালানির দাম বাড়ানোর পর কয়েকদিন খুচরাপর্যায়ে এসব ফলের দাম ৩০-১০০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন,জ্বালানির দাম বাড়ানোর কারণে পরিবহন খরচ অনেক বেড়েছে। ব্যবসায়ীরা পরিবহনের জন্য বাড়তি যে টাকা ব্যয় করছেন, তা গিয়ে যোগ হচ্ছে পণ্যের দামে। এতে স্বাভাবিকভাবেই দাম বেড়ে যাচ্ছে। এখানে ব্যবসায়ীদের কিছু করার নেই।

ব্যবসায়ীরা বারি ফোর আমের কেজি বিক্রি করছেন ২৪০-২৫০ টাকা। তেলের দাম বাড়ার আগে এ আমের কেজি বিক্রি হচ্ছিল ১৬০-১৮০ টাকা দরে। আশ্বিনা আমের কেজি এখন ৭০-১২০ টাকা, যা আগে ছিল ৬০-৮০ টাকার মধ্যে।

এদিকে, খুচরা ব্যবসায়ীরা দক্ষিণ আফ্রিকার আপেলের (গ্রিন আপেল) কেজি বিক্রি করছেন ৩০০-৩২০ টাকা, যা জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর আগে ছিল ২৪০-২৮০ টাকা। গালা আপেলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৭০-২৯০ টাকা, যা আগে ছিল ২২০-২৪০ টাকা। ফুজি আপেলের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২৪০-২৬০ টাকা, যা আগে ছিল ১৮০-২০০ টাকার মধ্যে।

আপেলের দামের বিষয়ে ব্যবসায়ীরা বলছেন, এর আগে কখনো আপেলের এতো দাম দেখিনি আড়তে আপেলের অস্বাভাবিক দাম। দরদাম করতে গেলে আড়তদার খারাপ ব্যবহার করছেন অনেক সময় কার্টনে পচা আপেলও থাকে তখন লোকসান গুনতে হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3