প্রথমবারের মত মিশরের মমির মুখমন্ডল উন্মোচিত

এস এম আবু সামা আল ফারুকীঃ এই প্রথমবারের মতো আধুনিক উপায়ে সিটি স্ক্যান প্রযুক্তির মাধ্যমে মিশরের ফারাওদের মমির ভেতরে দেখা হয় যার দরুন মমিটিকে মমি টিকে খোলার প্রয়োজন পড়েনি এবং অক্ষত রেখেই প্রয়োজনীয় গবেষণা করা সম্ভব হয়েছে।

যে মমিটি নিয়ে গবেষণা করা হয়েছে সেটি প্রাচীন মিশরের শাসক আমেনহোটেপের। যার শাসনকাল ছিল খ্রিস্টপূর্ব ১৫২৫ থেকে ১৫০৪ পর্যন্ত। মমিটি ১৪০ বছর পূর্বে আবিষ্কৃত হয়। মমিটি নিয়ে গবেষণার পর তার মমি ও শাসক সম্পর্কে বেশ কিছু নতুন তথ্য পাওয়া গেছে।

কায়রো ইউনিভার্সিটির মেডিসিন অনুষদের প্রফেসর যিনি এই গবেষণার নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি বলেন, “৩০০০ বছর ধরে মমির পেছনে থাকা চেহারা এই প্রথম আমরা দেখতে পাচ্ছি।” আমেনহোটেপের সাথে তার পিতার মুখের বেশ মিল পাওয়া যায়।

মমিটির দেহে কোনো আঘাতের নমুনা না থাকায় ভাইরাস বা কোনো ইনফেকশন তার মৃত্যুর কারণ বলে ধরা হয়। তার মমিটি প্রথম মমি যার বুকের কাছে হাত ভাজ করে রাখা হয়। আশ্চর্যের বিষয় হল অন্য মমির মত তার মস্তিষ্ক সরানো হয়নি এবং তার মমিকে দুইবার কবর দেওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে।

সূত্র: বিবিসি

  •  
  •  
  •  
  •  
ad0.3